বাংলাদেশ কমনওয়েলথের কততম সদস্য?

প্রশ্ন: বাংলাদেশ কমনওয়েলথের কততম সদস্য?

সঠিক উত্তর: ৩২ তম সদস্য

কমনওয়েলথ কী?

কমনওয়েলথ একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা, যেটি ব্রিটেন নেতৃত্ব দিয়ে থাকে। পূর্বে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অধীনে ছিল এমন দেশগুলোকে নিয়ে ব্রিটেনের একটি সহযোগীতা সংস্থা এটি। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান ইত্যাদি দেশগুলো এই সংস্থার সদস্য।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ব্রিটিশ সাম্রাজ্য ভাঙতে শুরু করে। একে একে স্বাধীন হতে থাকে ব্রিটিশ কলোনিভুক্ত অঞ্চলগুলো। ব্রিটিশ শাসন মুক্ত হওয়ার পরেও ব্রিটেন সেই দেশগুলোর সাথে সুসম্পর্ক বাজায় রাখার জন্য একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা গঠন করার কথা ভাবে।

আর এখান থেকেই জন্ম নেয় কমনওয়েলথ ধারণাটি। ১৯৪৯ সালে কমনওয়েলথ প্রতিষ্ঠা পাওয়ার পর থেকে এই সংস্থায় অনেকগুলো দেশ সদস্য পেয়েছে। এমনকি ব্রিটিশ সাম্রাজ্য ভুক্ত না হয়েও কিছু দেশ আছে যারা সংস্থাটির সদস্য। আবার পূর্বে ব্রিটিশ সাম্রাজ্য ভুক্ত হলেও বিশ্বে এমন কিছু দেশ আছে যারা কিনা এই সংস্থার সদস্যপদ নেয়নি।

তো কমনওয়েলথের উদ্দেশ্য কী? কমনওয়েলথের প্রধান উদ্দেশ্য হলো সারা বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোর সাথে সুসম্পর্ক বাজায় রাখা এবং শান্তি ও সুশাসন রক্ষায় জাতিসংঘের সহায়তা করা। এছাড়া গণতন্ত্রের ধারা বজায় রাখতে কমনওয়েলথ সর্বদা চিন্তিত।

বাংলাদেশ কমনওয়েলথের কততম সদস্য?

বাংলাদেশ এক সময় বৃটিশ সাম্রাজ্য ভুক্ত ছিল। ১৭৫৭ সালে ২৩ জুন পলাশীর যুদ্ধে বৃটিশরা বাংলাকে হাত করে নেয়। পরবর্তীতে পুরো ভারতকেই বৃটিশ সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত করে ফেলে তারা। বৃটিশরা প্রায় ২০০ বছর শাসন করে গেছে বাংলাকে।

কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ব্রিটিশদের শাসন অনেকটা দূর্বল হয়ে পড়ে। যার কারণে ভারতবর্ষকে স্বাধীন করে দেওয়া ছাড়া তাদের কাছে কোনো উপায় ছিল না। তাই ১৯৪৭ সালে ভারতকে ধর্মের উপর ভিক্তি করে দুইটি দেশে ভাগ করে ফেলা হয়।

বাংলাদেশ তখন ছিল পাকিস্তানের অংশ। কিন্তু আবার ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ পাকিস্তান থেকে সম্পূর্ণভাবে আলাদা হয়ে যায় এবং ভারত ও ভুটান বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশের স্বীকৃতি প্রদান করে।

এই সময় বাংলাদেশ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার সদস্য পদ দাবী করতে থাকে। পূর্বে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত ছিল বলে কমনওয়েলথের সদস্য পদ পাওয়ায় কোনো বাধা ছিল না। স্বাধীনতার পরের বছরেই বাংলাদেশ সংস্থাটির সদস্য পদ পেয়ে যায়। বাংলাদেশ কমনওয়েলথের ৩২ তম গর্বিত সদস্য।

আরো পড়ুন

প্রশ্নের উৎস

বাংলাদেশ কমনওয়েলথের কততম সদস্য? প্রশ্নটি এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকটি চাকরি পরীক্ষায় আসতে দেখা দিয়েছে। খোদ ১৩ তম বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় এই প্রশ্নটি এসেছিল।

তথ্যসূত্র উইকিপিডিয়া