মুক্তিযুদ্ধের সময় সাব সেক্টর কয়টি ছিল?

প্রশ্ন: মুক্তিযুদ্ধের সময় সমগ্র বাংলাদেশকে কতটি সাব-সেক্টরে ভাগ করা হয়? বা মুক্তিযুদ্ধের সময় সাব সেক্টর কয়টি ছিল?

সঠিক উত্তর: ৬৪ টি

মুক্তিযুদ্ধের সময় সমগ্র বাংলাদেশকে কতটি সাব-সেক্টরে ভাগ করা হয়?

সেক্টর

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে যুদ্ধের কৌশল হিসেবে সমগ্র বাংলাদেশকে ১১ টি সেক্টরে ভাগ করে দেওয়া হয়। সেক্টর ভাগের কাজটি তৎকালীন প্রবাসী সরকারের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদের পরামর্শে সম্পন্ন করেন প্রধান সেনাপতি এমএজি ওসমানী গনি।

প্রতিটি সেক্টরে একজন করে সেক্টর কমান্ডার নিযুক্ত করা হয়। প্রতিটি সেক্টরের কমান্ডারেরা সাহসিকতার সাথে রণকৌশল পরিচালনা করে যান। তিনজন সেক্টর কমান্ডার পরবর্তিতে ব্রিগেড ফোর্সের দায়িত্বও পান। তাই ১১ টি সেক্টরে মোট সেক্টর কমান্ডার ছিল ১৭ জন।

সাব সেক্টর

আমরা জেনেছি, মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশকে ১১ টি সেক্টরে ভাগ করা হয়। তবে, এই সেক্টরকে আবার কিছু ছোট ছোট সেক্টরেও ভাগ করা হয়েছিল। এই ছোট ছোট সেক্টরগুলোকেই বলা হয়েছে সাব সেক্টর।

আর মুক্তিযুদ্ধের সময় সাব সেক্টর ছিল ৬৪ টি। প্রতিটি সাব সেক্টর কিন্তু তার মূল সেক্টরের অধীনেই কার্যক্রম পরিচালনা করতো। মুক্তিযুদ্ধের সময় কয়টি সআব সেক্টর ছিল তা মনে রাখার জন্য চমৎকার একটি টেকনিক আমি তোমাদের জানিয়ে দিচ্ছি।

মনে রাখার টেকনিক

আপনি এই সহজ প্রশ্নটির উত্তর একটি মনে রাখার টেকনিকের মাধ্যমে মনে রাখতে পারবেন। এতে করে পরবর্তীতে কখনো ভুলবেন না যে, মুক্তিযুদ্ধের সময় সমগ্র বাংলাদেশকে কতটি সাব-সেক্টরে ভাগ করা হয়।

আপনাকে শুধু এভাবে মনে রাখতে হবে যে, মুক্তিযুদ্ধের সময় সমগ্র বাংলাদেশকে ৬৪ টি সাব সেক্টরে ভাগ করা হয় এবং বর্তমানে বাংলাদেশের জেলা সংখ্যাও ৬৪ টি।

এই দুইটি তথ্য একসাথে মিলিয়ে পড়ুন। এতে আপনার তথ্য মনে রাখার স্থায়িত্ব বেশিদিন থাকবে। এই টেকনিক ফলো করলে আশা করছি আর কখনো ভুলবেন না যে মুক্তিযুদ্ধের সময় সাব সেক্টর কয়টি ছিল।

আরো পড়ুন

প্রশ্নের উৎস

মুক্তিযুদ্ধের সময় সমগ্র বাংলাদেশকে কতটি সাব-সেক্টরে ভাগ করা হয়? বা মুক্তিযুদ্ধের সময় সাব সেক্টর কয়টি ছিল? এই দুটি প্রশ্ন এ যাবৎ বহু পরীক্ষায় এসেছিল। বিশেষ করে পিএসসি নন ক্যাডার জবে এই প্রশ্নটি আসতে দেখা যায়। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রশ্ন হওয়ায় এই প্রশ্নের উত্তর জানা অত্যন্ত জরুরি।

তথ্যসূত্র উইকিপিডিয়া

Leave a comment