পৃথিবীর জমজ গ্রহ কোনটি?

প্রশ্ন: পৃথিবীর জমজ গ্রহ কোনটি?

সঠিক উত্তর: শুক্র গ্রহ

পৃথিবীর জমজ গ্রহ কোনটি?

শুক্র গ্রহকে পৃথিবীর জমজ গ্রহ বলা হয় কেন?

শুক্র গ্রহকে পৃথিবীর জমজ গ্রহ বলা হয়। কিন্তু শুক্র গ্রহকে পৃথিবীর জমজ গ্রহ বলা হয় কেন? এই প্রশ্ন কী মাথায় এসেছিল কখনো? এর পেছনে কারণ হলো শুক্র গ্রহের আকার ও পৃথিবীর আকার প্রায় সমান। পৃথিবীর ব্যাসার্ধ ৬৩৭৮ কিলোমিটার এবং শুক্র গ্রহের ব্যাসার্ধ ৬০৫২ কিলোমিটার। শুক্র গ্রহের ব্যাসার্ধ পৃথিবীর ব্যাসার্ধ হতে মাত্র কয়েক কিলোমিটার ছোট। তবুও দুই গ্রহকে পাশাপাশি রাখলে প্রায় সমান বলে মনে হবে।

এছাড়া পৃথিবী যেমন একটি বায়ুমণ্ডল রয়েছে, ঠিক তেমনি শুক্র গ্রহের একটি বায়ুমণ্ডল রয়েছে। মজার ব্যাপার হচ্ছে পৃথিবীতে যেমন আগ্নেয়গিরি দেখা যায়, ঠিক তেমনি শুক্রগ্রহতেও আগ্নেয়গিরি দেখা যায়। তবে শুক্র গ্রহের আগ্নেয়গিরির সংখ্যা পৃথিবীর তুলনায় বহুগুণ।

পৃথিবীর জমজ গ্রহ কোনটি?

শুক্র গ্রহে বায়ুমন্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ অনেক বেশি প্রায় ৯৭ শতাংশ। যার কারণে গ্রিনহাউস গ্যাস প্রভাবে শুক্র গ্রহের তাপমাত্রা অন্যান্য গ্রহের তুলনায় অনেক বেশি। পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের পরিমাণ এক শতাংশের চেয়েও কম, কিন্তু মানুষের কর্মকাণ্ডের কারণে পৃথিবীতে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ দিন দিন বেড়ে চলেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, পৃথিবীতে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাবে এবং সেই সাথে গ্রীন হাউস এফেক্ট পরিলক্ষিত হবে। ফলাফল স্বরূপ পৃথিবীর তাপমাত্রা দিন দিন বৃদ্ধি পাবে।

আমরা কিন্তু গ্রিন হাউস গ্যাসের প্রভাব বর্তমানে দেখতে পাচ্ছি। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, পৃথিবীর তাপমাত্রা পূর্বের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। এর পেছনে মূল কারণ হচ্ছে গৃণহাউস এফেক্ট। পৃথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে মেরু অঞ্চলের বরফ গলে যাচ্ছে এবং সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে সমুদ্র অঞ্চল ও দ্বীপগুলো সাগর পানিতে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

আরো পড়ুন

অনেকগুলো দিক বিবেচনায় শুক্র গ্রহকে পৃথিবীর জমজ গ্রহ বলা হয়। আকার, বায়ুমণ্ডল, গ্রীন হাউস এফেক্ট ইত্যাদি দিয়ে পৃথিবীর তুলনা শুক্র গ্রহের সাথে করা হয়ে থাকে। শুক্র গ্রহ টেলিস্কোপের সাহায্যে দেখলে অতি সুন্দর মনে হলেও এটি মূলত একটি নরকের গ্রহ। যদি প্রশ্ন আসে– পৃথিবীর জমজ গ্রহ কোনটি? তবে আপনার উত্তর হবে শুক্র গ্রহ।

প্রশ্নের উৎস

পৃথিবীর জমজ গ্রহ কোনটি? মহাকাশ বিজ্ঞান বিষয়ক এই প্রশ্নটি বিভিন্ন চাকরির পরীক্ষায় আসতে দেখা যায়। বিশেষ করে বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় দৈনন্দিন বিজ্ঞান অংশে এই প্রশ্নটিই আসার সম্ভাবনা অনেক বেশি। সাধারণত প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ও বেসরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় এই প্রশ্নটিই আসতে দেখা যায়।

তথ্যসূত্র উইকিপিডিয়া

শেয়ার করুন

Leave a comment