ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিট পাশ নম্বর

মানবিকের শিক্ষার্থীদের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে হলে খ ইউনিটে পরীক্ষা দিতে হয়। তুমি যদি মানবিকের শিক্ষার্থী হয়ে থাকো এবং তোমার ইচ্ছা যদি দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার লক্ষ্য হয়ে থাকে, তবে তোমাকে খ ইউনিটে পরীক্ষা দিতে হবে। আজকে আমরা জানবো, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিট পাশ নম্বর কত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিট পাশ নম্বর

গত বছর খ ইউনিটে মাত্র ১০% এর কিছু বেশি পাশের হার ছিল। অতএব বুঝতেই পারছো, খ ইউনিটে অনেকেই পাশ মার্ক তুলতেই পারে না। আর যারা পাশ করতে পারে, তাদের অনেকেরই খুব সহজেই চান্স পেয়ে যায়।

যারা খ ইউনিটে পাশ করতে পারে না, তাদের মধ্যে অন্য রকম হতাশা চলে আসে। কেননা পাশ নম্বর তুলতেই না পারা একটি বড় ব্যর্থতা। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাশ করার শর্তগুলো কিছুটা জটিল। তাই অনেক ভালো শিক্ষার্থীরা পাশ করতে পারছে না।

মূলত অনেকেরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশ নম্বর সম্পর্কে ধারণা নেই। তাই অনেকেই খ ইউনিটে ফেইল করে বসে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়ার পূর্বশর্ত হচ্ছে পাশ করা, তাই তোমাকে পাশ করার শর্তগুলো অবশ্যই জেনে রাখতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খ ইউনিট পাশ নম্বর

তোমরা জেনে থাকবে, ২০১৯ সাল থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমসিকিউ প্রশ্নের পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষাও নেওয়া হচ্ছে। আগে শুধু এমসিকিউ পরীক্ষা হতো। এখন তোমাকে এমসিকিউ ও লিখিত দুই অংশেই পাশ নম্বর তুলতে হবে। সেই সাথে দুই অংশে মোট নম্বরেও পাশ তুলতে হবে।

এমসিকিউ পাশ নম্বর

খ ইউনিটে তিনটি বিষয় থেকে প্রশ্ন এসে থাকে। বিষয় তিনটি হচ্ছে– বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান। মোট এমসিকিউ প্রশ্ন থাকবে ৬০ টি। প্রতিটি প্রশ্নের নম্বর ১ করে, কিন্তু কোনো প্রশ্নের উত্তর ভুল দাগালে ওই বিষয় থেকে ০.২৫ করে নম্বর কাটা হবে।

বাংলা এমসিকিউ অংশে থেকে ১৫ টি প্রশ্ন থাকবে এবং বাংলা এমসিকিউ অংশে পাশ মার্ক ৫। ইংরেজি এমসিকিউ অংশে থেকে ১৫ টি প্রশ্ন থাকবে এবং ইংরেজি এমসিকিউ অংশে পাশ মার্ক ৫। আর সাধারণ জ্ঞান এমসিকিউ অংশ থেকে ৩০ টি প্রশ্ন থাকবে এবং সাধারণ জ্ঞান এমসিকিউ অংশে পাশ মার্ক ১০।

খ ইউনিটে এমসিকিউতে কোন বিষয়ে কত নম্বরে প্রশ্ন আসবে এবং পাশ নম্বর দেখে নাও নিচের ছকে–

এমসিকিউ অংশে পাশ নম্বর
বিষয় মোট নম্বর পাশ নম্বর
বাংলা ১৫
ইংরেজি ১৫
সাধারণ জ্ঞান ৩০ ১০

বাংলা বা ইংরেজিতে ৫ এর কম অথবা সাধারণ জ্ঞানে ১০ এর কম পেলেই তুমি ফেইল। কোনো একটি বিষয়ে ফেইল করলে, অন্য বিষয়ে যতই বেশি নম্বর পাও না কেন তুমি ফেইল বলেই বিবেচিত হবে।

এবার তোমাকে এমসিকিউ অংশে মোট নম্বরের উপর পাশ করতে হবে। বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান এমসিকিউতে ৬০ এর মধ্যে ২৪ নম্বর পেতে হবে। ২৪ এর কম পেলে ফেইল বলে বিবেচিত হবে।

মনে রাখা উচিত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কিন্তু সকল শিক্ষার্থীর লিখিত খাতা কিন্তু কাটবে না। মোট আসনের কমপক্ষে ৫ গুণ খাতা কাটবে। যারা এমসিকিউ নম্বরে এগিয়ে থাকবে তাদের খাতাই কাটা হবে। এছাড়া এমসিকিউয়ে ভালো করা ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়ার সম্ভাবনাও খুব কম।

লিখিত পাশ নম্বর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খ ইউনিটে লিখিততে ৪০ নম্বরের প্রশ্ন আসে। যার মধ্যে বাংলায় ২০ ও ইংরেজিতে ২০ নম্বরের প্রশ্ন হয়ে থাকে। সাধারণ জ্ঞান থেকে কোনো আসে না লিখিত প্রশ্নে।

একজন শিক্ষার্থীকে বাংলা ও ইংরেজি উভয় অংশের আলাদা করে পাশ করতে হবে। বাংলা ও ইংরেজিতে আলাদা করে ৫ নম্বর পেলেই তুমি পাশ বলে বিবেচিত হবে। এর কম পেলেই ফেল বলে বিবেচিত হবে। সেই সাথে তোমাকে লিখিততে দুই বিষয়ে ৪০ এর মধ্যে ১১ পেতে হবে। ১১ পেলেই তুমি লিখিত অংশে পাশ বলে গণ্য হবে।

খ ইউনিটে লিখিততে কোন বিষয়ে কত নম্বরে প্রশ্ন আসবে এবং পাশ নম্বর দেখে নাও নিচের ছকে–

লিখিত অংশের পাশ নম্বর
বিষয় মোট নম্বর পাশ নম্বর
বাংলা ২০
ইংরেজি ২০

মোট পাশ নম্বর

এমসিকিউ ও লিখিত অংশে পাশ করার পর তোমাকে মোটের উপর পাশ করতে হবে। এমসিকিউ ও লিখিত মিলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হয়। আর ১০০ এর মধ্যে যারা ৪০ এর কম পাবে, তারা ফেইল বলে বিবেচিত হবে। তাই পাশ করতে হলে তোমাকে ৪০ বা তার বেশি পেতে হবে।

খ ইউনিটে পাশ করা সহজ মনে হলেও পাশ করার শর্তগুলো বেশ জটিল। তাই অনেকেই ফেইল করে বসে। কিন্তু পূর্ব ধারণা ব্যবহার করে তুমি তোমার খুঁতগুলো শুধরিয়ে নিতে পারো। পরবর্তী ধাপের জন্য শুভ কামনা।

আরো পড়ো

Leave a comment