কোন দেশ দুটি মহাদেশে অবস্থিত?

প্রশ্ন: কোন দেশ দুটি মহাদেশে অবস্থিত? অথবা কোন দেশ এশিয়া এবং ইউরোপ উভয় মহাদেশে অবস্থিত?

উত্তর: তুরস্ক ও রাশিয়া

কোন দেশ দুটি মহাদেশে অবস্থিত?

তুরস্ক

পৃথিবীর অন্যতম প্রাচীন এক দেশের নাম তুরস্ক। মুসলিম প্রধান দেশে এক সময় উসমানীয় সাম্রাজ্যের রাজত্ব ছিল। কিন্তু প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর সেখানে ধর্ম নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ওসমানী খেলাফত সমাপ্তি ঘটে।

কিন্তু বর্তমানে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোয়ান তুরস্ককে একটি আধুনিক দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে বদ্ধ পরিকর। দেশটির রাজধানী আঙ্কারা হলেও বিশ্ববিখ্যাত শহর ইস্তানবুল তুরস্কে অবস্থিত।

তবে মজার ব্যাপার হলো, তুরস্ক কিন্তু একটি মহাদেশ অবস্থিত নয়। এটি একই সাথে ইউরোপ ও এশিয়া দুই মহাদেশেই মহাদেশে অবস্থিত। তুরস্কের বেশিভাগ ভূমি এশিয়া মহাদেশে পরেছে এবং কিছু অংশ ইউরোপ মহাদেশে পড়েছে।

আরো পড়ুন

রাশিয়া

বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত একটি দেশের নাম রাশিয়া। আয়তনের দিক দিয়ে রাশিয়া পৃথিবীর সবচেয়ে বৃহত্তম দেশ। আর রাশিয়া একই সাথে দুটি মহাদেশে অবস্থিত।

অনেকেই রাশিয়া বলতে ইউরোপের একটি দেশ হিসেবে থাকে, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে রাশিয়া ইউরোপ ও এশিয়া দুই মহাদেশে অবস্থিত। রাশিয়ার বেশিভাগ ভূমি এশিয়া মহাদেশে অবস্থিত হলেও এর রাজধানী মস্কো ইউরোপ মহাদেশের অংশে অবস্থিত।

যার কারণে রাশিয়ার মধ্যে ইউরোপীয় সংস্কৃতির সাথে অনেকটা মিল রয়েছে। কিন্তু আয়তনের দিক দিয়ে দেখতে গেলে রাশিয়া বেশিভাগ এশিয়া মহাদেশে পরেছে। অতএব, তুরস্কের মত রাশিয়াও একই সাথে এশিয়া ও ইউরোপ দুটি মহাদেশে অবস্থিত।

কোন দেশ দুটি মহাদেশে অবস্থিত?

কোন দেশ এশিয়া এবং ইউরোপ উভয় মহাদেশে অবস্থিত? উপরের আলোচনা থেকে আশা করি বুঝতে পেরেছেন, রাশিয়া ও তুরস্ক দুটি মহাদেশে অবস্থিত দেশ। দুটি দেশই এশিয়া এবং ইউরোপ মহাদেশের অবস্থান করছে। যার মধ্যে তুরস্ক আবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য পদ পেতেও আগ্রহী।

প্রশ্নের উৎস

কোন দেশ দুটি মহাদেশে অবস্থিত? প্রশ্নটি আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী অংশ থেকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশ্ন। এই প্রশ্নটি বিসিএস ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা, ব্যাংক চাকরি নিয়োগ পরীক্ষা, শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা এবং অন্যান্য নন ক্যাডার নিয়োগ পরীক্ষায় বারবার আসতে দেখা দিয়েছে। প্রশ্নটি অতি গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় ব্যাখ্যাসহ সঠিক উত্তর জানা অত্যন্ত জরুরি।

তথ্যসূত্র উইকিপিডিয়া

Leave a comment